যুগের জিজ্ঞাসা, ইসলামের সমাধান ৩

মুহা. হাম্মাদ বিল্লাহ, রায়পুর, মেীলভীবাজার।

৮নঃ প্রশ্ন ঃ সাধারণত দেখা যায় যে, লোকেরা তাদের নখ, চুল ইত্যাদি কেটে যত্রতত্র ফেলে দেয়। এক্ষেত্রে শরীয়তের কোন নির্দেশনা আছে কী? জানতে চাই।

উত্তর ঃ কর্তীত নখ, চুল ইত্যাদি দাফন করে দেওয়াই উত্তম। অবশ্য  কোন পবিত্র স্থানে ফেলে দেওয়ারও অবকাশ রয়েছে। তবে কোন অপবিত্র স্থানে ফেলা ঠিক নয়।

আল বাহরুর রায়েক ৮/২০৪, হিন্দিয়া ৫/৩৫৮, কাযীখান ৩/৪১১

 

মুহা. খন্দকার হারুনুর রশিদ, মিরপুর, ঢাকা

৯নং প্রশ্ন ঃ আমরা জানি উযু ব্যতিত কুরআন শরীফ স্পর্শ করা নাজায়েয। এখন আমার জানার বিষয় হল, উযু ব্যতিত কুরআনের কোন আয়াত লেখা যাবে কী?

উত্তর ঃ কুরআন শরীফ আল্লাহ তায়ালার কালাম। সুতরাং এর স্পর্শ, লেখন-পঠনসহ সর্বক্ষেত্রে পূর্ণ আদবের প্রতি খেয়াল রাখা আবশ্যক। তাই এর কোন আয়াত লেখার সময়ও উযু ব্যতিত লেখা থেকে বিরত থাকা কর্তব্য। অবশ্য নিতান্ত ঠেকা বশত: উযু ব্যতিত লিখতে গিয়ে যদি আয়াত লিখিত অংশে হাত না লাগে বরং কাগজের সাদা অংশে হাত লাগে তবে তা নাজায়েয হবে না।

আদ্দুররুল মুখতার ১/৩১৭, খায়রুল ফাতাওয়া ১/২১৯

 

মুহা. মাবরুরুয্যামান, নিলক্ষেত, ঢাকা।

১০নং প্রশ্নঃ আমাদের এলাকায় দেখা যায় যে, মৃত্যু সয্যায় শায়িত ব্যক্তির পাশে এবং মৃত ব্যক্তির পাশে কুরআন তিলাওয়াত করা হয়। জানতে চাই, এ বিষয়ে শরীয়তের কী নির্দেশনা রয়েছে?

উত্তর ঃ মুত্যু সয্যায় শায়িত ব্যক্তির পাশে হালকা আওয়াজে কালিমা পাঠ করা কর্তব্য। পাশাপাশি সূরায়ে ইয়াছিন পাঠ করাও মুস্তাহাব। তবে মৃতুবরণ করার পর তার পাশে বসে তিলাওয়াত করবে না, বরং মৃত্যুর সাথে সাথে যথা সম্ভব তাড়াতাড়ি গোসল দিয়ে কাপন দাপনের ব্যবস্থা করতে হবে। হাঁ, কাফন দাফনের ব্যবস্থা চলা কালিন সময় মৃত ব্যক্তি থেকে কিছুটা দুরে বসে তিলাওয়াত করতে পারবে। অবশ্য গোসল করানোর পর কোন ওযর বশত: দাফন করতে দেরি হলে মৃতের পাশে বসেও তিলাওয়াত করা জায়েয। আবু দাউদ ২/৪৪৪, বযলুল মাজহুদ ১৪/৭৯, আদ্দুররুল মুখতার ৩/৭৩

শেয়ার করুন

  • Share this post on Facebook
  • Tweet about this post
  • Share this post on Delicious
One Response to "যুগের জিজ্ঞাসা, ইসলামের সমাধান ৩"
  1. Reply najiur rahman January 30, 2017 09:53 am

    Apnader ai ogrojatray roilo antorik OVINONDON

মন্তব্য করুন